বিশ্বকাপে উইন্ডিজের বিপক্ষে রাহুলকে শান্ত থাকার আর্জি গেইলের

২য় সর্বোচ্চ রানসংগ্রাহক হিসেবে দ্বাদশ আইপিএল মৌসুম শেষ করলেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ওপেনার কেএল রাহুল। একটি শতরান ও ৬টি অর্ধশতরানসহ ১৪ ম্যাচে রাহুলের ঝুলিতে ৫৯৩ রান। স্বভাবতই ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে ওপেনিংয়ে তার সঙ্গীকে নিয়ে উচ্ছ্বসিত ক্রিস্টোফার হেনরি গেইল। আইপিএল অভিযান শেষে রাহুলের পারফরম্যান্সের ভূয়সী প্রশংসা করে তাঁকে আসন্ন বিশ্বকাপের জন্য শুভেচ্ছা জানালেন ক্যারিবিয়ান তারকা।

তবে পাশাপাশি গেইল এও জানিয়ে রাখলেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে রাহুলের এই ফর্ম যেন নিষ্প্রভ থাকে। রবিবার মোহালিতে গ্রুপ শীর্ষে থাকা চেন্নাই সুপার কিংসকে হারিয়ে চলতি আইপিএলে অভিযান শেষ করেছে কিংস ইলেভেন। শেষ ম্যাচে জয় এলেও তা প্লে-অফের প্রশ্নে পর্যাপ্ত ছিল না। তবে টুর্নামেন্ট জুড়ে রাহুলের দুরন্ত পারফরম্যান্স অব্যাহত ছিল শেষ ম্যাচেও। ৭টি চার ও ৫টি ছয়ের সাহায্যে এদিন ৩৬ বলে দুরন্ত ৭১ রানের ইনিংস খেলেন এই ভারতীয় ওপেনার।

মূলত রাহুল-গেইলের ১০৮ রানের ওপেনিং পার্টনারশিপে ভর করেই রবিবার ১৭১ রানের লক্ষ্যমাত্রা সহজেই ছুঁয়ে ফেলে প্রীতির দল। আর ম্যাচ শেষে রাহুলের প্রশংসা করে ইউনিভার্স বস জানান, ‘আজকের ম্যাচের সিংহ কেএল রাহুল, ক্রিস গেইল নয়। সঙ্গী হিসেবে তুমি আমার অন্যতম সেরা ওপেনিং জুটি। চলতি আইপিএলে আমরা বেশ কিছু দুর্দান্ত ওপেনিং পার্টনারশিপ উপহার দিয়েছি। ভারতীয় দলে তুমি যে পরবর্তী সুপারস্টার এবিষয়ে আমার ধারণা বদলাবে না।’

এরপর আসন্ন বিশ্বকাপেও রাহুলের বিধ্বংসী ফর্ম জারি থাকার শুভেচ্ছা জানান গেইল। টানা দ্বিতীয় মরশুমের জন্য কিংস ইলেভেনের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহককে বিশ্বকাপের জন্য শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি যদিও সাবধানের রাস্তাতেও হেঁটেছেন গেইল। ইউনিভার্স বসের কথায়, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে রাহুলের পাওয়ার হিটিং যেন কাজ না করে।

পালটা রাহুল জানান, ‘আরসিবি’তে থাকাকালীন ২১ বছর বয়স থেকে গেইলের সঙ্গে ড্রেসিংরুমে সময় কাটাচ্ছি। ওপেনার হিসেবে ওর থেকে অনেক কিছু শিখেছি। তাই এখন এসে গেইলের প্রশংসা পাওয়া আমার কাছে ভীষণই গুরুত্বপূর্ণ।’