বাংলাদেশের বিশ্বকাপ পলিকল্পনা জানালেন সাকিব আল হাসান

চলতি মাসেই শুরু ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে চতুর্থ বিশ্বকাপে অংশ নিবেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের সহ-অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। বলা যেতে পারে, গত আসরগুলোর তুলনায় এবার একটু বেশিই প্রাণবন্ত তিনি। কারণ এক অনন্য শাক্তিশালী টিম নিয়ে বিশ্বকাপ মিশনে এসেছে তার দল-বাংলাদেশ।

দ্বাদশ বিশ্বকাপ মিশনে বাংলাদেশ অনন্য লক্ষ্য নিয়ে নামছে সেটি সাকিবের কথায় স্পষ্ট। বুধবার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপ কালে মিস্টার সেভেন্টি ফাইভ জানান, এবার সেমিফাইনালে যাওয়ার যে লক্ষ্য বাংলাদেশ স্থির করেছে, সেই কঠিন পথ পাড়ি দিতে হলে তাকে জ্বলে উঠতে হবে। বিশ্বকাপ বিশ্বকাপই, সেটা চার বছরে একবার আসে। কত কত ক্রিকেটার এসেছে, কিন্তু বিশ্বকাপে ৩০ ম্যাচ খেলতে পেরেছে এমন ক্রিকেটারের সংখ্যা মাত্র ২৫।

বিশ্বকাপ নিয়ে সাকিব যে কতটা সিরিয়াস তা প্রতিবেদনের ছবিতেই স্পষ্ট। ৩২ এ পা দেওয়া সাকিব নিজের ওজন কমিয়েছেন ছয় কেজি। মুখে বয়সের চর্বিও উধাও। সাকিবকে দেখে সেই প্রথম বিশ্বকাপের তরুণটাকেই মনে হতে পারে। এ নিয়ে শুধু বললেন, নিজের ভেতর থেকে শরীরটাকে ফিট করার একটা তাগিদ অনুভব করেছিলেন, ‘ফিট থাকলে দেখবেন সব ভালো লাগবে। শরীর ফিট থাকলে আত্মবিশ্বাসও ভালো থাকে। ঝরঝরে লাগে।’

বদলে যাওয়া সাকিবের ব্যাট-বলের ধারও বেড়েছে। প্রস্তুতি ম্যাচ থেকেই মাঠে সবচেয়ে চনমনে খেলোয়াড়টি মনে হচ্ছে তাকে। আর মাঠে যেদিন সাকিব মুডে থাকেন, বাংলাদেশের জন্যও কাজটা সহজ হয়ে যায়।

বিশ্বকাপ মাথায় রেখেই যে এই বদলে যাওয়া, সেটিও বললেন সাকিব, ‘সামনে বিশ্বকাপ। প্রস্তুতি নেওয়ার একটা ভালো সুযোগ ছিল। তাই চেষ্টা করেছি আমি যেন শারীরিক ও মানসিকভাবে সবচেয়ে সেরা অবস্থায় থেকে এই টুর্নামেন্টটা শুরু করতে পারি।’