প্রথম কোয়ালিফায়ারে এগিয়ে মুম্বাই, চেন্নাইয়ের ভরসা ধোনি

আইপিএলে চেন্নাই সুপার কিংস ও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স যতবারই মুখোমুখি হয়েছে, ততবারই ইতিহাস তৈরি হয়েছে। আর প্রেক্ষাপট যদি হয় প্লে-অফের মঞ্চ, তবে তো আর কথাই নেই। চির-শত্রু দুই দল যখন পরস্পরের বিরুদ্ধে ময়দানে নামে, কখনও সেই লড়াই এল-ক্লাসিকোর মর্যাদাও পেয়ে থাকে।

মঙ্গলবার আরো এক দুর্দান্ত সমরের সাক্ষ্মী হতে চলেছে চিপক। আইপিএলের প্রথম কোয়ালিফায়ারে মুখোমুখি হতে চলেছে মহেন্দ্র সিং ধোনি ও রোহিত শর্মার দল। ধারে, ভারে ও শক্তিতে সমান-সমান নীল ও হলুদ ব্রিগেডের ম্যাচে তুল্যমূল্য লড়াই হবে বলেই ধরে নেওয়া হচ্ছে। দেশের সেরারা তো বটেই, টক্কর হবে বিদেশি খেলোয়ারদের মধ্যেও। ক্যাপ্টেন কুলের ক্যারিশমার উপর ভরসা রেখেও ম্যাচে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকেই এগিয়ে রাখছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। এর পিছনে কারণও রয়েছে একাধিক।

আইপিএলে মুখোমুখি দুই দল
পরিসংখ্যান বলছে, এখনও পর্যন্ত আইপিএলে মুম্বাইয়ের সঙ্গে ২৮ বার সাক্ষাৎ ঘটেছে চেন্নাইয়ের। ১৬ বার জিতেছেন রোহিত শর্মারা এবং ১২ বার জিতেছেন মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। এমনকী চলতি আইপিএলের দুটি লিগ ম্যাচেই হলুদ সিংদের হারের দরজা দেখিয়েছে আরব সাগরের পারের দল। সেদিক থেকে দেখলে আইপিএলের প্রথম কোয়ালিফায়ারে পাল্লা ভারী নীল জার্সিদেরই।

চিপকে রেকর্ড
ঘরের মাঠে জয়ের রেকর্ডে সিএসকের ধারে-কাছে নেই অন্য কোনো দল। চিপকে আইপিএলের ৩৯টি ম্যাচের ২৬টিতে জিতেছে ধোনি ব্রিগেড। শেষ ২৩ ম্যাচের ১৯টিতেই জিতেছে চেন্নাই। অবশিষ্ট চার ম্যাচ মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের কাছেই হেরেছে মেন ইন ইয়ালো। পরিসংখ্যান বলছে, ২০১০ সালের পর থেকে ঐতিহ্যবাহী চিপকে রোহিত শর্মাদের হারাতে পারেননি মহেন্দ্র সিং ধোনিরা। তাই এমএ চিদাম্বরম স্টেডিয়ামকে পক্ষান্তরে মুম্বাইয়ের ঘরের মাঠও বলতে শুরু করেছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের একাংশ।

প্লে-অফে মুখোমুখি
একমাত্র এটাই একটা জায়গা, যেখানে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলতে পারেন চেন্নাইয়ের সমর্থকরা। পরিসংখ্যান বলছে, আইপিএলের প্লে-অফে এখনও পর্যন্ত সাত বারের সাক্ষাতে চার বার জিতেছে ধোনি অ্যান্ড কং। সবমিলিয়ে প্লে-অফের ১৯ ম্যাচের ১২টি জিতেছে চেন্নাই সুপার কিংস ও ১৩টি ম্যাচের ৯টিতে জয় হাসিল করেছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

তারকাদের লড়াই
ইতিমধ্যেই ভারতের বিশ্বকাপগামী দল ঘোষণা হয়েছে। সেই দলে জায়গা পাওয়া একাধিক ক্রিকেটার চেন্নাই ও মুম্বাইয়ে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকায় ম্যাচ আকর্ষণীয় হবে বলেই ধরে নেওয়া যায়। সিএসকের অন্যতম স্তম্ভ মহেন্দ্র সিং ধোনি, রবীন্দ্র জাদেজা, কেদার যাদব জাতীয় দলের ভরসা। অন্যদিকে, ভারতের বিশ্বকাপগামী দলের সেরা মুখ রোহিত শর্মা, হার্দিক পাণ্ডিয়া, জসপ্রীত বুমরারা মুম্বাইয়ের জার্সিতেও নিজেদের জাত চিনিয়ে চলেছেন।

দুই দলের সম্ভাব্য একাদশ
চেন্নাই সুপার কিংস:
শেন ওয়াটসন, ফাফ ডুপ্লেসি, সুরেশ রায়না, আম্বাতি রায়ডু, মহেন্দ্র সিং ধোনি (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), কেদার যাদব, ডোয়াইন ব্রাভো, রবীন্দ্র জাদেজা, দীপক চাহার, হরভজন সিং, ইমরান তাহির।

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স: রোহিত শর্মা (অধিনায়ক), কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), সূর্যকুমার যাদব, কাইরন পোলার্ড, হার্দিক পাণ্ডিয়া, ক্রুণাল পাণ্ডিয়া, ইশান কিষাণ, মিচেল ম্যাকলেনাঘান, রাহুল চাহার, জসপ্রীত বুমরা, লাসিথ মালিঙ্গা।