টাইটানিকের শহরে চ্যালেঞ্জ ভারতের, জাহাজ বাঁচানোর লড়াইয়ে প্রোটিয়াব্রিগেড

টাইটানিকের শহর সাউদাম্পটন। যেখান থেকে নিউইর্য়ক সিটির জন্য যাত্রা শুরু করে সমুদ্রের তলায় তলিয়ে গিয়েছিল বিশালাকার টাইটানিক। সেই শহরেই বুধ দুপুরে দ্বাদশতম ক্রিকেট বিশ্বকাপের অভিযান শুরু করছে ফেভারিট ভারত। বন্দর শহর থেকে রওনা দিয়ে কোহলিদের অভিযান কতদূর সফল হবে, সেটা সময়ই বলবে, আপাতত ক্রিকেট সমর্থকদের সব চোখ ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচে।

কোহলিদের কাছে চ্যালেঞ্জ
২০১৫ বিশ্বকাপে গ্রুপের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তিনশোর বেশি রান তুলে ম্যাচ জিতেছিল ভারতীয় দল। ব্যাটে একাই ঝড় তুলেছিলেন শিখর ধাওয়ান। ১৩৭ রানের বিস্ফোরক ইনিংস খেলেছিলেন শিখর। বল হাতে শামি-মোহিতরা দুটি করে উইকেট তুলে নেয়। তিন উইকেট নিয়েছিলেন স্পিনার অশ্বিন। ভারত ম্যাচ জিতেছিল ১৩০ রানে। সেই প্রোটিয়া দলের বিরুদ্ধেই এবার বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ ভারতের। কোহলিদের সামনে তাই পুরনো পারফর্ম্যান্সের ঝলক দেখানোর চ্যালেঞ্জ।

প্রোটিয়াদের জাহাজ বাঁচানোর লড়াই
বিশ্বকাপে শুরুটা একেবারেই ভালো হয়নি ডুপ্লেসিদের। প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের কাছে হার। পরের ম্যাচে বাংলদেশের কাছে পরাজয়। নিট ফল ভারতের বিরুদ্ধে নামার আগে চাপের সাগরে দক্ষিণ আফ্রিকা। টাইটানিকের শহরে ডুপ্লেসিদের জাহাজ ডুববে নাকি প্রর্ত্যাবর্তন করে বিশ্বকাপের লড়াইয়ে ফিরবে প্রোটিয়ারা, সেখাই এখন দেখার।

তিনশোর পুঁজিও নিরাপদ নয়
চলতি বিশ্বকাপে এখনও পর্যন্ত সাউদাম্পটনে ম্যাচ খেলা হয়নি। ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচ দিয়েই রোসবোলে শুরু হচ্ছে মহারণ। পিচের চরিত্র আগাম আন্দাজ মুশকিল।তবে ইংল্যান্ডের মাটিতে তিনশোর বেশি রান করেও হারার উদাহরণ রয়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে প্রাক বিশ্বকাপ পর্বে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে তিনশো রানের বেশি তুলেও ম্যাচ হেরেছে পাকিস্তান। ফলে ইংল্যান্ডের মাটিতে তিনশোর পুঁজিও নিরাপদ নয়।

কোহলি বনাম স্টেইন-
বিরাটের বিরুদ্ধে প্রোটিয়া জার্সিতে নামতে পারেন স্টেইন। প্রোটিয়া মিডিয়া সূত্রে খবর ৮৫ শতাংশ ফিট স্টেইন। হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে ভারতের বিরুদ্ধে ম্যাচে নেই লুঙ্গি। পরিবর্তে স্টেইন খেলল কোহলি-স্টেইন ডুয়েলের দিকে আলাদা নজর থাকবে।

ভারতের বোলিং-
সঞ্জয় মঞ্জরেকর বলেই দিয়েছেন, বোলিংই আসল সম্পদ ভারতের। আইসিসি এক নম্বর বোলার বুমরাহের গতির সামনে ডুপ্লেসিরা কেমন ব্যাটিং করে, সেটাই এখন দেখার। সঙ্গে শামি, ভুবির সুইং আর কুলদীপ-চাহালের স্পিন ভেল্কি প্রোটিয়াদের চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেবে বলার অপেক্ষা রাখে না।