টস জিতলেই ব্যাট

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ছিল স্পিনারদের অধিপত্য। কিন্তু ওয়ানডে সিরিজে চলতে পারে ‘শিশির’ অধিপত্য। ঢাকা হোক কিংবা সিলেট শিশিরের প্রভাব থাকবে অপরিবর্তিত। টস নিয়ে তাই থাকবে উৎকণ্ঠা। তবে টস জিতলে ব্যাট করা নিয়ে কোন দলের বোধহয় সংশয় নেই।

বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়কও বললেন সে কথা। টসই ম্যাচ হার জিতের কারণ হবে এমনটা তিনি বলেননি। তবে টসের প্রভাব থাকবে তা নিশ্চিত করেছেন, ‘টসের ওপর অনেক কিছু নির্ভর করছে। দিবা-রাত্রির ম্যাচে সবসময় এটা ঝুঁকির অংশ। শিশির কতটা কি পড়ছে তার ওপর সিদ্ধান্ত নিতে হবে। পরে ব্যাট করলে কামনা করতে হবে যেন একটু ডিউ পড়ে।’

টসের পর সিদ্ধান্ত নেওয়া কঠিন উল্লেখ করে মাশরাফি বলেন, ‘এই সময়ে ঝুঁকিটা থাকেই। হয়তোবা আপনাকে আন্দাজের উপরই নির্ভর করতে হবে ডিউ কতটুকু।’

টস জিতে ব্যাট করলে কেমন রান করতে হবে। কিংবা প্রতিপক্ষকে কত রানের মধ্যে আটকাতে হবে তারও একটা ধারণা দিলেন মাশরাফি। তবে তা প্রকারন্তে নির্ভর করছে ঘাষের ডগায় শিশির কতটা জমে তার ওপর। মাশরাফি বলেন, ‘শুরুতে ব্যাট করলে কত রান হবে তা নির্ভর করছে আমরা কেমন ব্যাটিং করি তার ওপর। তবে এই উইকেটে ২৬০ রান সাধারণত নিরাপদ ধরা হয়। শিশির পড়লে আরও ২০-২৫ রান বেশি। শিশির না থাকলে হয়তো ২৮০-৫০ করেও দেখা যাবে ম্যাচ জিতছি।’

মাশরাফি বিন মর্তুজা তার ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ২০০তম ম্যাচ খেলতে মাঠে নামবেন রোববার। প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে জিতে নিশ্চয় মাইলফলকটা স্মরণীয় করতে চাইবেন অধিনায়ক। এ নিয়ে ম্যাশ বলেন, ‘এগুলো আমার কাছে এত গুরুত্বপূর্ণ না। গুরুত্বপূর্ণ কালকের ম্যাচটা জেতা। এটা অবশ্যই একটা অর্জন। যখন মানুষ বলবে, তুমি দেশের হয়ে ২০০ ম্যাচ খেলেছো, ভালো লাগবে।’