এই ৫ ক্রিকেটারই ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের চমক

আসন্ন বিশ্বকাপ উপলক্ষ্যে ইতোমধ্যে প্রায় সবদলই স্কোয়াড ঘোষণা করেছে। যাতে প্রতিটি দলই কিছু না কিছু চমক উপহার দিয়েছে। তাদের মধ্য থেকে চমক হিসাবে পাঁচজনকে বেছে নিয়েছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা আইসিসি।

চলুন দেখে নেওয়া যাক আইসিসির চোখে এই চমকেরা কারা।

মোসাদ্দেক হোসেন:

মজার ব্যাপার হলো, বিশ্বকাপ দলে যে সুযোগ পাবেন তা নিজেও কল্পনা করতে পারেননি টাইগার অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন। তিনি নিজেও চমকে গেছে বিসিবির ঘোষণাপত্রে নিজের নাম দেখে। কারণ দীর্ঘদিন ধরে নামের সুবিচারে অক্ষম মোসাদ্দেক। ২০১৬ সালে অভিষেক হওয়া ২৩ বছর বয়সী ক্রিকেটার সবশেষ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন গত বছরের এশিয়া কাপে। তবুও বিশ্বকাপ স্কোয়াডে জায়গা পেয়ে গেছেন তিনি।

টম ব্লান্ডেল:

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার মোটেও বড় নয় টম ব্লান্ডেলের। কিন্তু তারপরও দ্বাদশ বিশ্বকাপে তার প্রতি আস্থা রাখে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড।
আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে ওয়ানডে ক্রিকেট না খেললেও কিউইদের হয়ে মাত্র ২টি টেস্ট এবং ৩টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন ব্লান্ডেল। যার সব শেষটি আবার ছিলো গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে। মূলত ব্যাকআপ উইকেটরক্ষক হিসাবে বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পেয়েছেন তিনি।

বিজয় শঙ্কর:

যেখানে ঋষভ পন্ত ও আম্বাতি রায়ডুর মতো ধারাবাহিক তারকা প্লেয়ার ভারতের বিশ্বকাপ দলে সুযোগ পায় না সেখানে বিজয় শঙ্করকে টেনে নেয় ভারত ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই। আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে ৯টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে মাত্র ১৬৫ রান তুলেছেন বিজয় শঙ্কর।

হামিদ হাসান:

মোটামুটি পরিচিত তারকাদের সমন্বয়ে বিশ্বকাপ দল ঘোষণা করলেও আফগানিস্তানের চমক হামিদ হাসান। যিনি সবশেষ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন ২০১৬ সালে। এছাড়াও ২০১৭ সালের ডিসেম্বরের পর হামিদ হাসান খেলেননি কোন প্রথম শ্রেণি, টি-টোয়েন্টি বা লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ। তবু অভিজ্ঞতার বিচারে তাকে বিশ্বকাপগামী দলে সুযোগ দেয় আফগানিস্তান বোর্ড।

মিলিন্দা সিরিবর্ধনে

দ্বাদশ বিশ্বকাপে দল ঘোষণায় মোটামুটি চমক পরিদর্শন করে শ্রীলঙ্কা। কারণ আসন্ন বিশ্বকাপ দলে জায়গা হয়নি অনেক পরিচিতি মুখের, অধিনায়ক করা হয়েছে ৪ বছর ধরে ওয়ানডে না খেলা দিমুথ করুনারত্নেকে। আর চমক হিসাবে নেওয়া হয়েছে সিরিবর্ধনেকে।