অর্ডার পরিবর্তন করে পাঞ্জাবের বিপক্ষে মাঠে নামবে কলকাতা

কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে আজ আগ্রাসী মেজাজে নামার পরিকল্পনায় নাইট রাইডার্স শিবিরে। টানা ছয় ম্যাচ হারের পরে গত রবিবারই ইডেনে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে হারিয়েছে কেকেআর। আজ শুধু দুই পয়েন্ট পেলেই চলবে না। জিততে হবে বড় ব্যবধানে। বর্তমানে ১২ ম্যাচ খেলে দু’দলেরই পয়েন্ট ১০। আজ ঘুরে দাঁড়াতে কাকে কাকে নামাতে পারে নাইটরা?

ওপেন করার কথা ক্রিস লিনেরই। পাঞ্জাবের নেট রান রেট -০.২৯৬। নাইটদের নেট রান রেট +০.১০০। প্লে-অফের দৌড়ে এগিয়ে থাকতে হলে শুক্রবার নাইটদের জিততে হবে বড় ব্যবধানে। লিন বড় রান তুলে দিতে পারলে তুলনামূলকভাবে অনেকটাই এগিয়ে থাকবে নাইট রাইডার্স। গত ম্যাচে চমৎকার খেলেছেন লিন।

দু’ নম্বরে থাকতে পারেন শুভমন গিল। প্রথম দিকে নামলে দলের ক্ষেত্রে দ্রুত রান তুলতে পারবেন বলেই আশা ক্রিকেট বিশেষজ্ঞদের। মাথা ঠান্ডা হওয়ায় বিপক্ষের বোলাররা স্ট্র্যাটেজি বুঝতে পারেন না শুভমনের।গত ম্যাচে ৪৫ বলে ৭৬ রানে মাত করেছেন। শুভমন গিলের কিন্তু ঘরের মাঠ। তাই তিনি বড় ভরসা।

তিন নম্বরে নামতে পারেন বাহুবলী আন্দ্রে রাসেল, নাইটরা যেটুকু ভাল খেলেছে, তার সিংহভাগ কৃতিত্ব রাসেল দাবি করলে খুব একটা ভুল কিছু হবে না। রাসেলের মতো ব্যাট-বলে দক্ষ ব্যাটসম্যানকে দলের প্রয়োজন প্রথম দিকেই। গত ম্যাচেও জয়ের নায়ক তিনি।

চার নম্বরে নামার কথা অধিনায়ক দীনেশ কার্তিকের। শীতল মস্তিষ্কের দীনেশকে ফিনিশার বলা হয়। ফর্মে ফিরছেন কার্তিক আস্তে আস্তে। মরণ-বাঁচন ম্যাচে এই উইকেটকিপার ব্যাটসম্যানই বড় ভরসা।

পাঁচ নম্বরে নামার কথা সুনীল নারাইনের। তিনি দ্রুত রান তুলতে সক্ষম। নারাইনের ঝোড়ো ইনিংস বিপক্ষের বোলারদের ভয় পাওয়াতে পারবেন বলেই আশা নাইটদের। স্পিনার হিসাবেও তিনি যথেষ্ট দক্ষ।

ছয় নম্বরে নামার কথা রবীন উথাপ্পার। তিনি ব্যাটে-বলে দক্ষ। মিডল অর্ডারের বড় ভরসা হতে পারেন।

সাত নম্বরে নামতে পারেন নীতীশ রাণা। তিনি ব্যর্থ হলে দল সমস্যায় পড়েছে। মাথা ঠান্ডা হওয়ায় পাঞ্জাবের বোলারদের সঙ্গে পাল্লা দেওয়ার ক্ষমতা রাখেন, প্রয়োজনে তিনি ওপেন করতেও পারেন।

আট নম্বরে নামতে পারেন পীযুষ চাওলা। ঘুর্ণি পিচে তার গুগলি সামলাতে ব্যাটসম্যানদের সমস্যায় পড়তে হতে পারে।

নয় নম্বরে থাকার কথা কুলদীপ যাদবের। মোহালির পিচে চায়নাম্যান ভেলকি দেখাবেন বলেই মনে করা হচ্ছে।

১০ নম্বরে নামতে পারেন হ্যারি গার্নি। গত ম্যাচে রোহিত শর্মার জরুরি উইকেটটি তিনিই নিয়েছিলেন। বোলার হিসাবে অন্যতম ভরসা তিনি নাইট বাহিনীর কাছে।

সন্দীপ ওয়ারিয়র থাকতে পারেন ১১ নম্বরে। তিনি ঘরোয়া ক্রিকেটে কেরলের হয়ে খেলেন। দ্রুত উইকেট তুলে নেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে তার।

কলকাতা সম্ভাব্য একাদশঃ
ক্রিস লিন, শুভমন গিল, আন্দ্রে রাসেল, দীনেশ কার্তিক, সুনীল নারাইন, রবীন উথাপ্পা, নীতীশ রাণা, পীযুষ চাওলা, কুলদীপ যাদব, হ্যারি গার্নি ও সন্দীপ ওয়ারিয়র।